,



শ্রীপুরের মত ভারী শিল্প এলাকাগুলোতে হাসপাতাল বর্জ্য অপসারণের ব্যবস্থা থাকা প্রয়োজন

শ্রীপুর উপজেলায় অনেকগুলো ক্লিনিক ও হাসপাতাল রয়েছে । অনেক হাসপাতালের বর্জ্য এখানে প্রতিনিয়ত হয় । বিশেষ করে রক্তাক্ত সুচ, সিরিঞ্জ, ব্যান্ডেজ জাতীয় বর্জ্যগুলো কোথায় ফেলা হবে এর কোন ধরা বাঁধা নিয়ম নেই । পরিবেশ অধিদপ্তর কর্তৃক তদারকির ব্যবস্থাও তেমন নেই । হাসপাতালের এই বর্জ্যগুলো স্বাস্থ ও পানির জন্য চরম ঝুকিপূর্ণ ।যদি সরাসরি নদীতে এগুলো ফেলা হয় তবে বড় ধরণের স্বাস্থ্য বিপর্যয় ঘটতে পারে এক সময় ।

হাসপাতালের বর্জ্য অপসারনের জন্য ইনসিনারেশন পয়েন্ট প্রয়োজন ।যেখানে সঠিক উপায়ে হাসপাতালের বর্জ্যকে পুড়িয়ে ফেলা যাবে । বিশেষ করে শ্রীপুরের মত সব শিল্প উন্নত উপজেলাগুলোতে বেশী প্রয়োজন । সরকার কর্তৃকই হাসপাতালগুলোকে ইটিপি ব্যবস্থাপনার আওতায় আনার পাশাপাশি দ্রুত বর্জ্যব্যবস্থাপনার মধ্যেও নিয়ে আসতে হবে । এ কারণে সরকার ঋণদান প্রকল্পও হাতে নিতে পারে ।

হাসপাতালের বর্জ্য ব্যবস্থাপনার মধ্যে নিয়ে আসতে পারলে অনেক বড় স্বাস্থঝুকি থেকে বাঁচবে আগামী প্রজন্ম । উপজেলা প্রশাসন উদ্যোগ নিয়ে এই বিষয়টি দ্রুত কার্যকর করবে বলে আমরা আশা করি ।আধুনিক উপজেলার জন্য এটা একটা মডেল হিসেবেও হতে পারে ।
আমি এ ব্যপারে শ্রীপুর পৌরসভা, উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসনের বিনীত দৃষ্টি আকর্ষন করছিেএবং সাথে সাথে সকল ভারী শিল্প এলাকাগুলোতে যাতে এ ব্যবস্থা চালু করা যায় তার জন্য সরকারের বিনীত দৃষ্টি আকর্ষন করছি ।

সাঈদ চৌধুরী

সদস্য, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি

শ্রীপুর, গাজীপুর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ