,



শ্রীপুরে ইউপি সদস্যের অস্ত্রের মহড়া, আটক-৩

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুরে জুট ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মহড়ার প্রস্তুতিকালে ইউপি সদস্যসহ তিনজনকে আটক করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে ১৫টি রাম দা, ২টি বল্লম, অসংখ্য বাঁশের লাঠি ও ৪টি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়।

আটককৃতরা হলো তেলিহাটি ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নং ওয়ার্ড সদস্য জয়নাল আবেদিন পিউর, গোদারচালা গ্রামের মো. আজিজের ছেলে যুবলীগ নেতা জালাল ও কফিল উদ্দিনের ছেলে আমান উদ্দিন।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার টেপিরবাড়ি গ্রামের ডিবিএল গ্রুপের মাওনা ফ্যাশন লিমিটেড কারখানার সামনে থেকে তাদের আটক করে থানা পুলিশ। জানা যায়, ডিবিএল গ্রুপের মাওনা ফ্যাশন লিমিটেড কারখানার জুট ব্যবসা একাই নিয়ন্ত্রণ করতো ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদিন পিউর। তবে একই এলাকার আওয়ামীলীগ নেতা মো. রিপন আহমেদ দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে জুট ব্যবসার ৫০ শতাংশ দখল নিতে চান। এ ঘটনায় বেশ কিছু দিন ধরে টান টান উত্তেজনাকর পরিস্থিতি চলছে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদিন পিউর দলবল নিয়ে কারখানার আশপাশে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মহড়া দিতে থাকে। অন্যদিকে ছাতির বাজার অবস্থান নেয় আওয়ামীলীগ নেতা মো. রিপন আহমেদের সাথে দলীয় নেতাকর্মীরা। এতে ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি হয় পুরো এলাকা জুড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ইউপি সদস্যসহ তিনজনকে আটক করে।

আ.লীগ নেতা মো. রিপন আহমেদ বলেন, সকাল থেকে ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদিন পিউর ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের নিয়ে রাম দা ও বল্লম নিয়ে দেশীয় অস্ত্র মহড়া দিয়ে আমাদের দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করছিল। তার সাথে ওই কারখানায় জুট ব্যবসা না করার জন্য বিভিন্ন ধরণের হুমকি দেয়।

শ্রীপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জাবেদুল ইসলাম জানান , আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ইউপি সদস্য পিউরসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে বেশ কিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। মামলা শেষে আদালতে প্রেরণ করা হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ