,



মানবদেহে নতুন অঙ্গের সন্ধান, ক্যান্সারের চিকিৎসায় সুখবর

মানবদেহে নতুন অঙ্গের সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা। এর নাম দেয়া হয়েছে ‘ইন্টারস্টিটিয়াম’ (Interstitium)। এর অবস্থান শরীরের চামড়ার নিচে। এ ছাড়া ফুসফুস, শিরা ও মাংসপেশির গায়ে থাকা টিস্যু লেয়ারের মধ্যেও থাকে এই অঙ্গ। প্রায় সারা শরীরজুড়ে এটি দেখা যায়। এতদিন পর্যন্ত মানবদেহে অঙ্গের সংখ্যা ছিল ৭৮টি। বিজ্ঞানীদের এই দাবি যথার্থ বলে প্রমাণিত হলে সে সংখ্যা বাড়তে চলেছে।

রিপোর্ট বলছে, এর ভেতর দিয়ে দিয়ে ইন্টারস্টিটিয়াল ফ্লুইড যায়। এই প্রথমবার ইন্টারস্টিটিয়ামকে পৃথক অঙ্গ বলে গণ্য করা হলো। শক্ত ও ফ্লেক্সিবল দুই ধরনের টিস্যু প্রোটিন দিয়েই তৈরি এই অঙ্গ। আর তার মধ্য দিয়ে বয়ে যায় ইন্টারস্টিটিয়াল ফ্লুইড।

মূলত ক্যান্সার রোগীদের দেহ থেকে এই অঙ্গের সন্ধান পান বিজ্ঞানীরা। আর এ থেকেই আবিষ্কার করা সম্ভব হবে যে কেন ক্যান্সার সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে ক্যান্সারের চিকিৎসা করা সম্ভব হবে।

বিজ্ঞানীরা আরও জানান, লেজার এনকোমাইক্রোস্কপি নামে এক নয়া প্রযুক্তি ব্যবহার করে লিভিং টিস্যু দেখতে পাচ্ছে। এ ছাড়া টিস্যু দেখার জন্য বিশেষ ক্যামেরাও ব্যবহার করা হচ্ছে।

বিজ্ঞানীদের মতে, যদি এটিকে অঙ্গ হিসেবে ধরা হয় এবং এর কার্যাবলী ঠিকঠাক জানা যায়, তবে চিকিৎসা জগতে বিপ্লব আসতে পারে। বিজ্ঞানের দুনিয়ায় সেক্ষেত্রে নতুন একটি দরজা খুলে যাবে বলেই অভিমত তাঁদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ