,



ভোক্তা আইন লংঘন করে নোংরা পরিবেশে প্যাকেটজাত করছে রঙ্গিন চিপস

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ চট্রগ্রাম নগরী চট্টগ্রাম খুলশী থানাধীন ১নং সেগুনবাগান রোডস্থ একটি রেল কোয়াটারের ভিতর ভোক্তা আইন লংঘন করে অত্যন্ত নোংরা পরিবেশে প্যাকেটজাত করছে বাচ্চাদের খাবার রঙ্গিন চিপস। যা সিমরান পাপড় হাউস নামে বাজার জাত করা হচ্ছে।

আর এসকল নোংরা খাবার খেয়ে সাধারণ মানুষ নানান রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায় নগরীর পাহাড়তলী কলেজ মোড়ে সেগুনবাগান ১নং রোড সংলগ্ন একটি রেল কোয়াটারে দীর্ঘদিন ধরে বসবাসরত বিহারী পরিবার শেখ মহিউদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ পারভেজ শুধু মাত্র চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের ডি ফরম টাঙ্গিয়ে সরকারকে কর ফাঁকি দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে।

সংবাদ সংগ্রহের জন্য সরেজমিনে পরিদর্শন কালে উক্ত এলাকার একাধিক ব্যক্তি বলেন এধরণের নোংরা পরিবেশে বাচ্চাদের খাবার চিপস ও পাপড় প্যাকেট জাত করার জন্য সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগ কিভাবে অনুমতি দেন তা আমরা জানিনা। এদিকে নোংরা পরিবেশে খাবার প্যাকেট জাত করন সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রতিষ্ঠানের মালিক মোহাম্মদ পারভেজ ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন এগুলোর জন্য বিএসটিআই,পরিবেশ ছাড়পত্র কিছুই লাগেনা।

এধরণের ব্যবসায় সরকারকে টেক্স দেওয়ার কিছুই নেই। আমরা সৈয়দপুর থেকে চিপস গুলো এনে এখানে প্যাকেট করে তা পাইকারি বাজারে বিক্রি করে থাকি। এসময় তারা নোংরা পরিবেশে প্যাকেট জাত কারিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। উল্লেখ্য, ভোক্তা অধিকার আইনে যেকোনো পন্যের গুনগত মান নির্ণয়ে বিএসটিআই এর অনুমোদন, প্যাকেটের গায়ে উৎপাদন তারিখ, মেয়াদ উত্তীর্ণ তারিখ, মূল্য তালিকা থাকা বাধ্যতামুলক হলেও এর কোনটাই মানছেন না সিমরান পাপড় হাউস নামের প্রতিষ্ঠানটির মালিক মোহাম্মদ পারভেজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ