,



৪৪ বছর ধরে চেষ্টা করেছি জনতার পুলিশ হতে : ডিএমপি কমিশনার

‘আমরা ৪৪ বছর ধরে চেষ্টা করেছি, জনতার পুলিশ হতে। বিশ্বাস ও ভালোবাসার ওপরে একজন পুলিশ সদস্যের কিছু পাওয়ার থাকে না। রাজধানীবাসীর বিশ্বাস ও ভালোবাসা অর্জন করতে চেষ্টা করছি। আর সেই লক্ষ্যেই আমাদের প্রত্যেকটি পুলিশ সদস্য কাজ করে যাচ্ছেন।’

আজ শনিবার বিকালে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ৪৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে শোভাযাত্রার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পুলিশ সদস্যদেরকে ‘জনতার পুলিশ’ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি ঢাকার প্রত্যেকটি থানাকে বিশ্বাস ও আস্থার কেন্দ্রস্থল হিসেবে গড়ে তুলতে। আমরা চাই মানুষ সেবার জন্য থানায় আসবে, ফেরার সময় যেন হাসিমুখে ফিরে যায়।’

প্রতিটি থানা হবে জনগণের আস্থার কেন্দ্র আইজিপি বলেন, সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের চেষ্টা অব্যাহত আছে আমাদের। এ লক্ষ্যে পুলিশ সদস্যরা ২৪ ঘণ্টা কাজ করে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে ডিএমপি কমিশনার কমিশনার মোহাঃ শফিকুল ইসলাম আরো বলেন, ঢাকা মহানগর পুলিশের লক্ষ্য রাজধানীবাসীর আস্থা অর্জন ও সেবা দেওয়া। সব সময়ই আমরা চেষ্টা করছি, জনতার পুলিশ হতে। আর সেই লক্ষ্যেই আমাদের প্রত্যেকটি পুলিশ সদস্য কাজ করে যাচ্ছে। একজন পুলিশ সদস্যের বিশ্বাস ও ভালোবাসার ওপরে কিছু পাওয়ার থাকে না।

পুলিশের ওপর আস্থা রাখায় নগরবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, আস্থা অর্জনই ডিএমপির একমাত্র লক্ষ্য।

গৌরবময় সেবার ৪৪ বছর পেরিয়ে ৪৫ বছরে পদার্পণ করলো ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। এ লক্ষ্যে আজ শনিবার অনারম্বর আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে পালিত হয় ডিএমপির ৪৫তম প্রতিষ্ঠা দিবস। দিবসটি উপলক্ষে ঢাকা মহানগর পুলিশ লাইনস রাজারবাগে এক নাগরিক সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান প্রধান অতিথি এবং স্বরাষ্ট্র সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দীন ও পুলিশের আইজি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় স্বরাষ্টমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান পুলিশকে মানুষের সেবায় কাজ করতে আহবান জানান।

এদিকে প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে বিকাল ৩টায় ডিএমপি সদর দপ্তর থেকে রাজারবাগ পুলিশ লাইনস পর্যন্ত বর্ণাঢ্য র‍্যালির আয়োজন করা হয়। আইজিপি ডিএমপির র্যালির উদ্বোধন করেন। ডিএমপি সদর দপ্তর থেকে রাজারবাগ পুলিশ লাইনে গিয়ে র্যালিটি শেষ হয়। এছাড়াও প্রতিষ্ঠা দিবসের ডকুমেন্টারি প্রদর্শনসহ মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এদিকে ডিএমপির ৪৫তম প্রতিষ্ঠা দিবসে রাজারবাগ পুলিশ লাইনস্ মাঠে নাগরিক সংবর্ধনা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে থাকছেন দেশের খ্যাতনামা অভিনেতা, অভিনেত্রী, সংগীত ও নৃত্যশিল্পীরা এবং বাংলাদেশ পুলিশ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের শিল্পীবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করবেন জনপ্রিয় সঙ্গিতশিল্পী নগরবাউল খ্যাত জেমস, চিরকুট ব্যান্ড, ক্লোজ আন ওয়ান খ্যাত সালমা ও হৈমন্তি রক্ষিত। সেই সঙ্গে বাংলাদেশ পুলিশ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ এর শিল্পীদের মনোরম নৃত্য ও সংগীত পরিবেশন করেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ